শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন

মেয়াদ বাড়ল প্রাথমিকের বিস্কুট প্রকল্পের

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : জুলাই ৮, ২০২১

মহামারি করোনাকালে দীর্ঘদিন দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত ৬ মাসের জন্য বেড়েছে প্রাথমিকের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মাঝে বিস্কুট বিতরণ তথা ‘দারিদ্র্য-পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পে’র মেয়াদ। তবে মেয়াদ বাড়লেও ব্যয় বাড়ছে না। প্রকল্পের বেঁচে যাওয়া টাকা দিয়েই প্রাথমিকের ৩০ লাখ শিক্ষার্থীদের উচ্চ পুষ্টিমানের বিস্কুট বিতরণ করা হবে জানা গেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে।
প্রকল্পের মেয়াদ বাড়াতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মতি চেয়ে প্রস্তাব পাঠিয়েছিল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। তাতে সম্মতি দিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে প্রাইমারি স্কুল মিল প্রকল্পের ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা) সংশোধনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে।

তবে এখনই এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিলে অবশ্যই প্রকল্পের মেয়াদ বাড়বে। তবে বিস্তারিত না জানা পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করতে পারব না।

মন্ত্রণালয় ও প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, যেসব প্রকল্পের ব্যয় ছাড়া মেয়াদ বাড়ে সেসব প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফাইল পাঠাতে হয় না। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় পরিকল্পনা কমিশনে প্রস্তাব পাঠালে তা পর্যালোচনা করে অনুমোদন দেয়। এর আগেও ‘দারিদ্র্য-পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পে’র মেয়াদ বাড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর মতামতের জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয়নি। তবে এবার ব্যয় ছাড়া প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়। এ প্রস্তাবে সায় দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

গত ১ জুন একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী ‘প্রাইমারি স্কুল মিল প্রকল্প’ অনুমোদন না দিয়ে ডিপিপি সংশোধনের প্রস্তাব দেন। নতুন প্রকল্প অনুমোদন না হওয়ায় এবং বিস্কুট বিতরণ প্রকল্পের মেয়াদ গত ৩০ জুন শেষ হয়ে যায়। নতুন প্রকল্পের ডিপিপি সংশোধন করতে অন্তত এক বছর সময় লাগবে। এ সময়ে বিস্কুট বিতরণ প্রকল্পের সুবিধাভোগী ৩০ লাখ শিক্ষার্থী অপুষ্টি ও ঝরে পড়ার আশঙ্কা থেকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) ব্যয় না বাড়িয়ে আরও এক বছর প্রকল্পের মেয়াদ বাড়াতে মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ