মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন

‘যে জিহ্বা দিয়ে মহানবী (সা.)-কে অপমান করা হয় তা কেটে ফেলা হবে’

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ৭, ২০২২
‘যে জিহ্বা দিয়ে মহানবী (সা.)-কে অপমান করা হয় তা কেটে ফেলা হবে’
‘যে জিহ্বা দিয়ে মহানবী (সা.)-কে অপমান করা হয় তা কেটে ফেলা হবে’

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মা মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে অপমান করায় ‍উত্তাল হয়ে উঠেছে ভারত। রাগে ফুঁসছে পুরো আরব বিশ্ব। এরইমধ্যে কড়া পদক্ষেপও নিয়েছে অনেক দেশ। কাতার ও ইরান তাদের দেশে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে। কুয়েতে ভারতীয় পণ্য বর্জনের খবর পাওয়া যাচ্ছে।

মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তির ঘটনায় ভারতের উত্তরপ্রদেশের কানপুরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এরইমধ্যে রাজস্থানের একটি ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে। সেখানে একজন মুসলিম ধর্মীয় নেতা মহানবী (সা.)-কে অপমানকারীর ‘জিহ্বা কেটে ফেলার’ হুমকি দিয়েছেন। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

রাজস্থানের বুন্দিতে এক সমাবেশে ওই ধর্মীয় নেতা বলেন, যারা মহানবী (সা.)-কে অপমান করবে তাদের ‘জিহ্বা কেটে ফেলা’ হবে। কারও হাত উঠলে তা কেটে ফেলা হবে। কারও চোখ উঠলে তা তুলে ফেলা হবে। তবুও মহানবীর (সা.) অপমান সহ্য করা হবে না।
ওই ধর্মীয় নেতা আরও বলেন, মহানবী (সা.)-কে অপমান করলে জিভ কেটে ফেলা হবে। আমরা জেলে যেতে পারি কিন্তু আমরা মোহাম্মদ (সা.)-র অপমান সহ্য করব না।

এদিকে ওই ধর্মীয় নেতার এমন মন্তব্যের পর বিক্ষোভ করেছে স্থানীয় বিজেপি। তারা ওই ধর্মীয় নেতার বিচারের দাবি জানিয়েছে। এমন বক্তব্য দেয়ার ঘটনায় ওই ধর্মীয় নেতার বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, এক টিভি টকশোতে মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি করেন বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মা। এ ঘটনায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পরে তাকে দল থেকে বহিষ্কারে বাধ্য হয় বিজেপি। নূপুরও নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ