বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০১:২২ পূর্বাহ্ন

ভারতের কাছে হেরে হোয়াইটওয়াশ আয়ারল্যান্ড

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ২৯, ২০২২

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে জয় পেতে কোন বেগ পেতে হয়নি হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বে থাকা ভারতের। কিন্তু দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে হারতে হারতে বেঁচে গেছে সফরকারীরা। শ্বাসরুদ্ধ ম্যাচে শেষ পর্যন্ত ৪ রানে জয় তুলে নিয়ে আইরিশদের হোয়াইটওয়াশ করেছে ভারত।

আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনের মালাহিডে দিপক হুদার সেঞ্চুরিতে ভারত করে নিজেদের ইতিহাসের চতুর্থ সর্বোচ্চ ২২৫ রান সংগ্রহ করে ভারত। রানের পাহাড় ডিঙানোর প্রত্যাশায় শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড। আইরিশরাও। সম্মিলিত মারকুটে ব্যাটিংয়ে জয়ের আশা জাগালেও, ৫ উইকেট ২২১ রানে থামতে হয় তাদের।

ভারতের রেকর্ড গড়া রান টপকে ম্যাচটি জিততে হলে ইতিহাসই গড়তে হতো আইরিশদের। কেননা টি-টোয়েন্টিতে তাদের সর্বোচ্চ সংগ্রহই ২২৫ রান। সেটিই টপকে গড়তে হতো নতুন রেকর্ড। সেই মিশনে পাওয়ার প্লে’তেই স্বাগতিক দুই ওপেনার পল স্টারলিং ও অ্যান্ডি ব্যালবার্নি তুলে ফেলেন ৭৩ রান।

কিন্তু পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে চতুর্থ বলে রবি বিষ্ণুইর বলে বোল্ড হওয়ার আগে মাত্র ১৮ বলে পাঁচ চার ও তিন ছয়ে ৪০ রানের ইনিংস খেলেন পল স্টার্লিং। ওয়াউন ডাউনে নামা গ্যারেথ ডিলানি স্বাগতিকদের হতাশ করেন। তিনি চার বল খেলে রানের খাতা খোলার আগেই রান আউটের শিকার হন। তৃতীয় উইকেটে ৪ ওভারে ৪৪ রান যোগ করেন ব্যালবার্নি ও হ্যারি ট্যাক্টর।

দলীয় ১১৭ রানের সময় তৃতীয় উইকেট হিসেবে অধিনায়ক ব্যালবার্নি হার্শাল প্যাটেলের শিকার হওয়ার আগে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে ষষ্ঠ ফিফটি তুলে নেন। ৩৭ বলে ৩ চার ও ৭ ছয়ে ৬০ রান করেন ব্যালবার্নি। চতুর্থ উইকেটে হ্যারি ট্যাক্টর ও লরক্যান ট্যাক্টর ২৫ রানের জুটি গড়েন। দলীয় ১৪২ রানে ব্যক্তিগত ৫ রান করা লরক্যান ট্যাক্টর উমরান মালিকের শিকার হন। দলীয় ১৮৯ রানে ২৮ বলে ৩৯ রান করে হ্যারি ট্যাক্টর ভুবনেশ্বর কুমারের শিকার হন। শেষ দিকে জর্জ ডকরেল ১৬ বলে ৩৪ ও মার্ক অ্যাডায়ার ১২ বলে ২৩ রান ভারতের মনে কাঁপন ধরালেও শেষ পর্যন্ত ম্যাচ জেতাতে ব্যর্থ হন।

ভারতের পক্ষে প্রায় সবাই খরুচে বোলিং করেন। ভারতের হয়ে রবি বিষ্ণুই, হার্ষাদ প্যাটেল, ভুবনেশ্বর কুমার ও উমরান মালিক একটি করে উইকেট লাভ করেন।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নামা ভারতীয় শিবিরে দলীয় ১৩ রানে ধাক্কা দেন মার্ক অ্যাডায়ার। দ্বিতীয় উইকেটে সানজু স্যামসন ও দীপক হুদা মিলে গড়েন ১৭৬ রানের জুটি। যা কি না টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে যেকোনো উইকেটে ভারতের সর্বোচ্চ রানের জুটির রেকর্ড। এই রেকর্ড গড়ার পথে মাত্র ৪২ বলে সাত চার ও চার ছয়ের সাহায্যে ৭৭ রান করেন স্যামসন। অপরদিকে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৪৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে জেতানোর পর দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন হুদা। তিন নম্বরে নেমে সাত চার ও ছয় ছয়ের সাহায্যে করেন ৫৭ বলে ১০৪ রান।

শেষ দিকে সুর্যকুমার যাদব ৫ বলে ১৫ ও হার্দিক পান্ডিয়া ৯ বলে ১৩ রান করলে দলীয় স্কোর গিয়ে দাঁড়ায় ২২৫ রানে। এদিন দিনেশ কার্তিক, হার্শাল প্যাটেল ও অক্ষর প্যাটেল আউট হন ০ রানে। মার্ক অ্যাডায়ার নেন ৩ উইকেট। জশ লিটল ও ক্রেইগ ইয়ংয়ের শিকার ২টি করে উইকেট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ