রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫৪ অপরাহ্ন

ব্রিটনি স্পিয়ার্সের ড্রাগ টেস্ট নিয়ে অদ্ভুত এক ঘটনা

বিনোদন ডেস্ক
আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১

জনপ্রিয় মার্কিন পপ তারকা ব্রিটনি স্পিয়ার্স ড্রাগ টেস্ট করা নিয়ে খুবই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন। কারণটা হলো গাঁজা নিয়ে। এই গাঁজার জন্য তিনি মনে করেছিলেন, ড্রাগ টেস্টের সময় কোনো কারণে এর গন্ধ পাওয়া গেলে তার ট্যুর বাতিল করা হবে। ফলে তিনি তার সন্তানদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না।

দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস প্রেজেন্টেস: কন্ট্রোলিং ব্রিটনি স্পিয়ার্স প্রকাশিত এক নতুন ডকুমেন্টারিতে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

টিশ ইয়েট, যিনি ২০০৯ সালের দিকে একটি কোম্পানির প্রধান ছিলেন, তিনি বলছিলেন, অন্যান্য শিল্পীদের মতো ব্রিটনি স্পিয়ার্সের কথা মনে পড়ে গেল। তাকে একটি অনুষ্ঠানে নেয়া হলো, কিন্তু সেখানে দর্শকের উপস্থিতি এতটাই বেশি ছিল যে ব্রিটনিকে আনার জন্য খুবই বেগ পেতে হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত তাকে দর্শকদের চোখ উপেক্ষা করে নিয়ে আসা সক্ষম হয়েছিল।

তবে ওই অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে যখন ব্রিটনি স্পিয়ার্স এবং আমরা বাসায় ফিরছিলাম তখন ব্রিটনি এক অদ্ভুত ঘটনার সস্মুখীন হয়েছিল। তিনি বলেন, ব্রিটনি খারাপ কিছুর গন্ধ পেয়ে বিরক্ত অনুভব করছিল। গন্ধটি ছিল গাঁজার মতো।

এ সময় ব্রিটনি চিৎকার করে বলেন, আমি শ্বাস নিতে পারছি না। আমি ড্রাগ টেস্টে উত্তীর্ণ হতে পারব না এবং আমি আমার সন্তানদের সঙ্গে দেখা করতে পারব না।

এ ঘটনার বছর খানেক পর মনোরোগ-সংক্রান্ত জটিলতায় ২০০৮ সালে আদালতের নির্দেশে পপ তারকা ব্রিটনি স্পিয়ার্সের বাবা জেমস স্পিয়ার্সকে দেয়া হয় তাকে দেখাশোনার দায়িত্ব৷ বাবার বিরুদ্ধে অভিভাবকত্বের ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ আনলেন ব্রিটনি৷

সবশেষ তৃতীয়বারের জন্য বিয়ে করতে চলেছেন মার্কিন এই পপ তারকা। ১২ বছরের ছোট প্রেমিক স্যাম আসগরির সঙ্গে বাগদান সেরে ফেলেছেন ৩৯ বছরের পপ গায়িকা। আর বাগদানের পরপরই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বিদায় নিলেন জনপ্রিয় এই গায়িকা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ