বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

বলিউডে কাপুরদের শিক্ষাগত যোগ‍্যতার নমুনা

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুলাই ১২, ২০২২

বলিউডের অভিজাত কাপুর পরিবার। বংশানুক্রমে অভিনয় জগতে পা রেখে আসছেন তাঁরা। রীতিমতো সম্মান, সম্ভ্রম করা হয় কাপুর পরিবারের সদস‍্যদের। কিন্তু সর্বসমক্ষে নিজের খানদানেরই নাক কাটালেন রণবীর কাপুর। ফাঁস করে দিলেন, বাইরে থেকে ঝাঁ চকচকে কাপুর পরিবারের অন্দরে আসলে অশিক্ষার বাস।

তিনিই নাকি পরিবারের ছেলে সদস‍্যদের মধ‍্যে প্রথম যিনি দশম শ্রেণি পাশ করতে পেরেছেন। অভিনেতার এই মন্তব‍্য কার্যত বিষ্ফোরণই ঘটিয়েছে। এমন অভিজাত পরিবার, অথচ তাঁদের মধ‍্যে এত অশিক্ষা!

রণবীরের স্বীকারোক্তির পর অনেকেই কৌতূহলী হয়ে পড়েছেন কাপুর খানদানের সদস‍্যদের পড়াশোনার দৌড় নিয়ে। রণবীর সহ কাপুর পরিবারের পাঁচ সদস‍্যের শিক্ষাগত যোগ‍্যতার তথ‍্য। তালিকায় রয়েছেন নব বিবাহিত বধূ আলিয়া ভাটও।

রণবীর কাপুর
নেহাত মিথ‍্যে বলেননি অভিনেতা। তিনি বাস্তবিকই পরিবারের প্রথম পুরুষ যিনি দশম শ্রেণির গণ্ডি পেরোতে পেরেছেন। কিন্তু অতটাই। তারপরেই রণবীর বাবা মাকে জানিয়ে দিয়েছিলেন, অনেক হয়েছে পড়াশোনা। এবার তিনি অভিনয় শিখতে চান। তারপরেই নিউ ইয়র্কে স্কুল অফ ভিস‍্যুয়াল আর্টসে ফিল্মমেকিং নিয়ে পড়াশোনা করেন রণবীর। করেন একটি মেথড অ্যাকটিং কোর্সও। কিন্তু কলেজে আর যাওয়া হয়নি তাঁর।

করিনা কাপুর খান
ইনি স্কুলের গণ্ডি পেরিয়ে কলেজে পা রেখেছিলেন। মিঠিবাই কলেজে দু বছর কমার্স নিয়ে পড়েছিলেন করিনা। সেখান থেকে গর্ভনমেন্ট ল কলেজে ভর্তি হন তিনি। কিন্তু অভিনেত্রী হওয়ার শখে প্রথম বর্ষের পরেই কলেজ ছেড়ে দেন করিনা।

করিশমা কাপুর
বাবা রণধীর কাপুরের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর মা ববিতা কাপুরকে সাহায‍্যের দায়িত্ব এসে পড়েছিল করিশমার কাঁধে। মাত্র ১৬ বছর বয়সে বলিউডে পা রেখেছিলেন তিনি। তাই পড়াশোনাটাও হয়নি করিশমার। ষষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত পড়েই পড়াশোনার পাট চুকিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

ঋদ্ধিমা কাপুর সাহানি– ভাইবোন তথা গোটা কাপুর পরিবারের ম‍ধ‍্যে সবথেকে বেশি শিক্ষিত ঋদ্ধিমা। চিরকাল অভিনয় থেকে দূরে থেকে পড়াশোনা করে গিয়েছেন সুন্দরী ঋদ্ধিমা। লন্ডনে আমেরিকান ইন্টারকন্টিনেন্টাল ইউনিভার্সিটি থেকে ডিজাইনিং এবং মার্কেটিং এ ব‍্যাচেলর ডিগ্রি করেছেন তিনি।

আলিয়া ভাট– সবথেকে নতুন সদ‍স‍্য কাপুর পরিবারে। মুম্বইয়ের যমনাবাই নার্সি স্কুল থেকে পাশ করেছেন আলিয়া। কিন্তু কলেজের চৌকাঠ আর পেরোননি। তার আগেই অভিনয়ে পা রাখেন তিনি। সুত্র বাংলাহান্ট


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ