রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন

ফেসবুকের নতুন চমক বুলেটিন ডটকম

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ৩০, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক

এবার ফেসবুকের নতুন চমক বুলেটিন ডটকম নামে নিউজলেটার পণ্য চালু করেছে। লেখক-সাংবাদিকেরা এখানে বিনা মূল্যে এবং অর্থের বিনিময়ে পড়ার জন্য নিউজলেটার পোস্ট করতে পারবেন, যা গ্রাহকদের ইনবক্সে যাবে এবং তা ফেসবুকে শেয়ার করা যাবে। ফেসবুক এখান থেকে পয়সা নেবে না বলেও ঘোষণা দিয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার এক অডিও চ্যাটে ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ এ ঘোষণা দেন। ফেসবুক বুলেটিন হলো সাবস্ট্যাকের ফেসবুকের সংস্করণ। সাবস্ট্যাক হচ্ছে একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম, যেখানে সাবস্ক্রিপশনের মাধ্যমে বিনা মূল্যে বা অর্থের বিনিময়ে পড়ার নিউজলেটার তৈরি ও বিতরণের মাধ্যম।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাবস্ট্যাকের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে নেমেছে ফেসবুক। মার্ক জাকারবার্গ বুলেটিন প্ল্যাটফর্ম ঘোষণার সময়ে এখানে নিয়োগ দেওয়া কয়েক লেখকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, খেলাধুলা, বিজ্ঞান, স্বাস্থ্য ও বাণিজ্য বিষয়ে কয়েক ডজন লেখককে নিয়োগ দিয়েছে ফেসবুক।

গত এক বছরে হাইপ্রোফাইল সাংবাদিক ও লেখক বিভিন্ন মিডিয়া প্রতিষ্ঠান ছেড়েছে। আর ফেসবুক সেই সুযোগ কাজে লাগাতে ই–মেইল নিউজলেটার চালু করল।

ফেসবুক জানিয়েছে, এই বুলেটিন থেকে প্ল্যাটফর্মে নিউজলেটার নির্মাতাদের উপার্জনে ভাগ বসাবে না তারা। কনটেন্ট নির্মাতারা তাঁদের নিজস্ব সাবস্ক্রিপশন মূল্য নির্ধারণ করতে পারবে।

রয়টার্স লিখেছে, গণমাধ্যমের সঙ্গে এই টেক জায়ান্টের ঝামেলার সম্পর্ক রয়েছে। গত ফেব্রুয়ারিতে নিউজ আউটলেটের কনটেন্টের জন্য অর্থ প্রদান করা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ান সরকারের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়ায় ফেসবুক। এই দ্বন্দ্বের পরই ফেসবুক আগামী তিন বছর বিশ্বব্যাপী নিউজ ইন্ডাস্ট্রিতে এক বিলিয়ন ডলার বা সাড়ে আট হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

ফেসবুক আরও জানিয়েছে, নিবন্ধ ও পডকাস্ট ফেসবুক নিউজ ফিডের মাধ্যমে এবং ফেসবুকের নিউজ বিভাগের মাধ্যমেও পাওয়া যাবে।

বুলেটিনের সাইটে বলা হয়, বুলেটিন এমন একটি পৃথক ওয়েবসাইট, যাতে কনটেন্ট নির্মাতারা তাঁদের গ্রাহক বাড়াতে সক্ষম হবেন এবং এর জন্য ফেসবুক প্ল্যাটফর্মের ওপর নির্ভর করতে হবে না।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রথমে এটি প্রাথমিকভাবে মার্কিন নির্মাতাদের জন্য চালু হয়েছিল, কিন্তু তা তেমনভাবে গ্রহণযোগ্যতা পায়নি। তবে এটি বলেছে যে বুলেটিন সাইটটি এখন বিশ্বব্যাপীই। বেটা ভার্সনের পর আরও আন্তর্জাতিক নাম যুক্ত করার চেষ্টা করবে তারা।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ