বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫৮ পূর্বাহ্ন

ক্রীড়া আদালতে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা, উভয়েই চায় পূর্ণ পয়েন্ট

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুলাই ২, ২০২২

কাতার ফুটবল বিশ্বকাপের ল্যাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্বের ম্যাচে গত সেপ্টেম্বরে মুখোমুখি হয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। কিন্তু করোনার বিধিনিষেধ অমান্য করে মাঠে নামার অভিযোগ করে সে ম্যাচে ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা হস্তক্ষেপ করলে ম্যাচ বাতিল হয়ে যায়। তাদের অভিযোগ আলবিসেলেস্তেদের চার খেলোয়াড় করোনা বিধিনিষেধ অমান্য করে মাঠে নামেন।

ইতোমধ্যে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে ও ইকুয়েডর কাতার বিশ্বকাপের মূলপর্ব নিশ্চিত করেছে। তবে বাছাইপর্বের দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর স্থগিত ম্যাচটি এখনো মাঠে গড়ায়নি। সেই স্থগিত ম্যাচ পুনরায় আয়োজনের জন্য ফিফা ব্রাজিলিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনকে (সিবিএফ) আগামী ২২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্দেশ প্রদান করে। সে হিসেবে ব্রাজিলও ২২ সেপ্টেম্বর ঠিক রেখে ম্যাচের জন্য সাও পাওলো মাঠ চূড়ান্ত করে।

কিন্তু ফিফার সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট হয়ে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ) আবেদন করেছে আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে (সিএএস)। তাদের দাবি না খেলেই যাতে পূর্ণ পয়েন্ট দেয়া হয় আলবিসেলেস্তেদের। একই আবেদনের দাবি নিয়ে ক্রীড়া আদালতে গিয়েছে ব্রাজিলও। কেননা ব্রাজিলও চাইছে না পূর্ণ পয়েন্ট হাতছাড়া করতে।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দু’দলই বিশ্বকাপ নিশ্চিত করায় এ ম্যাচ তেমন গুরুত্ববহন করে না। তাই তারা চাচ্ছে ম্যাচটি না খেলতে। কিন্তু ফিফা এতে রাজি নয়। তারা ম্যাচটি আয়োজন করতে চায়। কারণ হিসেবে ফিফার ভাষ্য এ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত না হলে বাছাইপর্বের সৌন্দর্য্য নষ্ট হবে। তবে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচ দেখতে কোনো সমীকরণ প্রয়োজন হয় না। নিঃসন্দেহে ধ্রুপদী এ ম্যাচ থাকবে আলোচনার কেন্দ্রে।

ব্রাজিলের সংবাদমাধ্যম গ্লোবোএস্পোর্তকে ব্রাজিলের ফুটবল ফেডারেশনের (সিবিএফ) প্রধান এদনালদো রদ্রিগেজ বলেছেন, ওই ম্যাচের জন্য ব্রাজিলের তিন পয়েন্ট ছাড়া আর কোনও ফল সিবিএফ মানতে রাজি নয়। আর্জেন্টিনাও একই দাবিতে আপিল করেছে।

শেষ পর্যন্ত ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচের ভাগ্যে কী আছে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে। কেননা ক্রীড়াবিষয়ক সর্বোচ্চ আদালত সিএএসে সে ম্যাচ নিয়ে শুনানি চলছে। সিএএস কারও দাবি মেনে না নিলে ম্যাচটি খেলতে হবে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনাকে। ফিফা ম্যাচটির কোনো তারিখ নির্দিষ্ট করে দেয়নি, শুধু নির্দেশ দিয়েছে সাও পাওলোর নিও কুইমিকা অ্যারেনায় ম্যাচটি আয়োজনের। সিবিএফ চায়, ম্যাচটি ২৩ সেপ্টেম্বরেই আয়োজিত হোক। সে সময়ে ফিফার দুটি ‘উইন্ডো’ আছে ২৩ ও ২৭ সেপ্টেম্বর।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ