শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১২:৩৯ অপরাহ্ন

লাঙ্গলবন্দে মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতি স্তমভে বাংলাদেশ ভারত সম্প্রীতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রদ্ধা

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : অক্টোবর ২, ২০২৩

????লাঙ্গলবন্দে মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতি স্তমভে বাংলাদেশ ভারত সম্প্রীতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রদ্ধা ????

নিজস্ব প্রতিবেদক
আজ আজ ২ অক্টোবর বিশ্ব অহিংস দিবস। এ উপলক্ষে দিবসটি যথাযথ ভাবে পালন করেছে বাংলাদেশ ভারত সম্প্রীতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি। দিবসটি উপলক্ষে অহিংস আন্দোলনের পুরোধা মহাত্মা গান্ধীর ১৫৪ তম জন্ম জয়ন্তী ও আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উদযাপনে বাংলাদেশ ভারত সম্প্রীতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. নিম চন্দ্র ভৌমিকের নেতৃত্বে নারায়নগঞ্জের লাঙ্গলবন্দে গান্ধী ঘাটে অবস্থিত মহাত্মা গান্ধী আবখ্য প্রতিকৃতি স্মৃতি স্তম্ভে পুস্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন দলটির নেতারা ।
এসময় এক মিনিট নিরবতা পালন করে মহাত্মা গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধা জানান বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সমিতির নেতৃবৃন্দরা।
আজ রোববার সকালে নারায়ণগঞ্জের লাঙ্গলবন্দে গান্ধী ঘাটে মহাত্মা গান্ধী স্মৃতি স্তম্ভে এ কর্মসূচী পালন করা হয়। বাংলাদেশ ভারত সম্প্রীতি পরিষদের মহাসচিব মমতাজ হোসেন চৌধুরীর পরিচালনায় বিশেষ অনুষ্ঠানে
এসময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সমিতির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক সচিব অশোক মাধব রায় চৌধুরী ,  সমিতির অন্যান্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে সাধারন সম্পাদক নারায়ণ সাহা মনি, কোষাধক্ষ্য আব্দুল মান্নান,  সদস্য ডা. সুব্রত ঘোষ, পরিমল ভৌমিক প্রমূখ।
জনশ্রুতি রয়েছে মহাত্মা গান্ধী মারা যাওয়ার পর ১৯৪৭ সালে ১২ ফেব্রুয়ারী নারায়ণগঞ্জের লাঙ্গলবন্দে বক্ষ্মপুত্র নদে তার দেহাবশেষ বিসর্জন দেওয়া হয়। এর পর এই স্থানটিকে মহাত্মা গান্ধী ঘাট নামকরণ হয়। পরে সেখানে তার আবখ্য প্রতিকৃতি স্থাপন করে স্মৃতি স্তম্ভ স্থাপন করা হয়। এর পর থেকে তার ভক্তরা এই তীর্থ স্থানে মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতি স্তম্ভে শ্রদ্ধা নিবেদন করে আসছে।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত বাংলাদেশ ভারত সম্প্রীতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা সাবেক রাষ্ট্রদূত ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. নিম চন্দ্র ভৌমিক বলেন ভারত ও বাংলাদেশ বন্ধু রাষ্ট্র। আমরা উভয় দেশের সম্মানিত ব্যক্তিদের অবদানকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি।আমরা চাই উভয় দেশের মানুষের মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় থাকুক।তিনি বলেন গান্ধীজির অবদান আমরা যথাযথ ভাবে স্বীকার করে তার বিশেষ দিনগুলিতে পালন করি।
বাংলাদেশ ভারত সম্প্রীতি পরিষদের মহাসচিব ও আওয়ামী লীগের শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক উপকমিটির সদস্য মমতাজ হোসেন চৌধুরী বলেন আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বাংলাদেশ বির্নিমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে সবার সহযোগিতা চাই।তিনি বলেন, গান্ধীজির জীবন দর্শন আমাদের দেশপ্রেমে উদ্বেলিত করে।তিনি বলেন অহিংস দিবসের আজকের অনুষ্ঠান থেকে আমি সারা পৃথিবীতে অহিংস আন্দোলনের প্রতীক মহাত্মা গান্ধীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।বক্তারা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মুক্তিযুদ্বের সকল শহীদদের ( বাংলাদেশ – ভারত ) গভীর শ্রদ্বার সংগে স্মরন করেন ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ