বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন

বন্যা মোকাবেলায় সব ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

রিপোর্টারের নাম :
আপডেট : জুন ১৯, ২০২২

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বন্যা মোবাবেলার পাশাপাশি জীবনজীবীকা সচল রাখতে সরকার সব পদক্ষেপ নিয়েছে। পদ্মাসেতুর উদ্বোধন হলে বন্যার মতো দুর্যোগের সময় যোগাযোগ সহজ হবে বলেও জানান তিনি। কৃতী ক্রীড়াবিদদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দেশের কৃতি ক্রীড়াবিদ, সংগঠক এবং ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সম্মাননা প্রদান উপলক্ষ্যে রোববার (১৯ জুন) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিভিন্ন খেলাধুলায় কৃতিত্ব অর্জনের জন্য তিন ক্যাটাগরিতে ৬৬ জন খোলোয়াড় এবং ২২ জন ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা সহ মোট ৮৮ জনকে সম্মাননা প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় তিনি বলেন, ক্রীড়াঙ্গনের উন্নয়নের জন্য সরকার সবধরনের উদ্যোগ নিয়েছে। খোলোয়াড়রা এখন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের ভাবমুর্তি উজ্জ্বল করছে। এসময় দেশীয় খেলাধুলার প্রসারে আরো উদ্যোগী হওয়ার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার আগে থেকেই এ নিয়ে সতর্ক ছিলো। প্রশাসন এবং দলীয় নেতাকর্মীদের বন্যার্তদের সব ধরনের সহযোগীতার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সুনামগঞ্জে পানি নামতে শুরু করেছে। এরপর মধ্যাঞ্চল প্লাবিত হবে। শ্রাবণ-ভাদ্র মাসে দক্ষিণাঞ্চলও প্লাবিত হবে। আমি মনে করি, পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হবে আল্লাহর আশীর্বাদ।

বন্যার সময় পদ্মসেতু আরও ভয়ংকর হয়ে উঠে এবং নৌযান চলাচল হুমকিতে পড়ে।একথা উল্লখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন এই সময় পদ্মসেতু উদ্বোধন হলে যোগাযোগ সহজ হবে ।

তিনি বলেন, ত্রাণ সহায়তা ও উদ্ধার কার্যক্রমে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমান বাহিনীর পাশাপাশি প্রশাসন তৎপর রয়েছে। পাশাপাশি আওয়ামী লীগ ও দলটির অঙ্গসংগঠনকে বন্যার্তদের সহায়তা করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, বন্যা উপদ্রুত এলাকার পানি নিস্কাশনের জন্য সরকার করণীয় সবকিছু করবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা দেশ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমরা কাউকে ভূমিহীন, গৃহহীন থাকতে দেব না। প্রত্যেকটা ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছি। সার্বিকভাবে দেশ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। যদিও করোনাভাইরাস আমাদের কিছুটা বাধা দিয়েছে। কিন্তু সেই বাধা আমাদরে জন্য কিছু না। এটা আমরা এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি। তিনি বলেন, আমরা বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে চলব। বিজয়ী জাতি হিসেবে চলব।

এসময় খোলোয়ারদের সবসময় বিজয়ী জাতি হিসেবে মাথা উঁচু করে খোলাধুলা করার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ