শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৫:২২ পূর্বাহ্ন

কড়াইল দিয়ে বস্তিবাসীদের টিকাদান শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : নভেম্বর ১৬, ২০২১

আজ  মঙ্গলবার থেকে রাজধানীর করাইল বস্তির বাসিন্দাদের টিকাদানের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে বস্তি এলাকায় টিকাদান শুরু করেছে সরকার।

আজ সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের টিকাদান কর্মসূচির পরিচালক ডা. শামসুল হক।

তিনি বলেন, আজ রাজধানীর কড়াইলে বস্তিবাসীদের টিকাদান কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করেছি। টিকা ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে দুই দিন টিকা দেওয়ার কথা থাকলেও এখন আমরা চিন্তা করছি পুরো বস্তিবাসীদের একেবারে কভার করতে। ক্যাম্পেইন হলো এক জিনিস, যেখানে আমরা এক দিন বা দুই দিন দিলাম। কিন্তু এখন আমরা এটাকে ক্যাম্পেইন বলছি না, পুরো বস্তিকেই আমরা টিকার আওতায় নিয়ে আসব। যে কয়দিনই লাগে, এ কার্যক্রম চলবে। পর্যায়ক্রমে সারাদেশের বস্তিগুলোকে টিকার আওতায় নিয়ে আসব।

ডা. শামসুল হক বলেন, আগে আমরা বিভিন্ন জায়গায় টিকাদান কর্মসূচি পরিচালনা করলেও বস্তি এলাকায় টিকাদান সেভাবে দেওয়া হয়নি। এতদিন ক্যাম্পেইনের ভিত্তিতে আমরা টিকা দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, কড়াইল বস্তিতে তিন লাখের মতো মানুষ আছে। তাদের অনেকেই টিকা নিয়েছে, যারা নেয়নি তাদেরই আমরা টিকা দেব। তবে অবশ্যই ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের দেওয়া হবে, এর নিচে নয়।

যাদের নিবন্ধন নেই, তাদের কীভাবে টিকা দেওয়া হবে জানতে চাইলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের এ কর্মকর্তা বলেন, এখানে উপস্থিতির ভিত্তিতেই যারা আসবে তাদের অনস্পট নিবন্ধন করানো হবে। আমরা আগেও অনেক জায়গায় যারা নিবন্ধন করেনি, তাদের এনআইডি অথবা জন্ম নিবন্ধনের মাধ্যমেই নিবন্ধন করিয়ে টিকা দিয়েছি।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) এক অনু্ষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বস্তি এলাকায় টিকাদান কর্মসূচির কথা জানান। তখন তিনি বলেন, দেশে করোনা সংক্রমণ কমার অন্যতম কারণ হলো টিকা। আমরা ইতোমধ্যেই প্রথম ডোজের টিকা দিয়েছি ৫ কোটিরও বেশি মানুষকে এবং দ্বিতীয় ডোজ দিয়েছি ৩ কোটির বেশি মানুষকে। দেশে প্রতিদিন গড়ে ১৫ লাখ মানুষ টিকা পাচ্ছেন। নভেম্বর মাসে তিন কোটি টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। আর জানুয়ারি মাসের মধ্যে ৭০ ভাগ টিকা দেওয়ার লক্ষ্য রয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ